,

06

কোটা সংস্কারের আন্দোলন এক মাসের জন্য স্থগিত

হাওর বার্তা ডেস্কঃ কোটা সংস্কারের আন্দোলন এক মাসের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। আজ সোমবার সন্ধ্যায় সচিবালয়ে আওয়ামী লীগ নেতাসহ সরকারের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক শেষে আন্দোলকারীদের প্রতিনিধি দল থেকে এই ঘোষণা দেওয়া হয়। একই সঙ্গে জানানো হয়, আগামী ৭ মে এর মধ্যে পরীক্ষা নিরীক্ষা করে কোটা সংস্কারের ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এর আগে বিকেল ৫টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের  ২০ জনের এক প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আওয়ামী লীগ নেতাদের বৈঠক হয়। ওই বৈঠকে অংশ নেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের রয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ হোসেন, এনামুল হক শামীম, আফম বাহাউদ্দিন নাছিম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আফজল হোসেন, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, উপ-দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এসএম কামাল হোসেন।

বৈঠক শেষে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধি দলের একজন আন্দোলন এক মাসের জন্য স্থগিতের কথা জানান।

আন্দোলনকারীদের সাথে বৈঠক শেষে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তরুণরা কোটা সংস্কার করার জন্য আন্দোলন করছেন। তারা আমাদের রাজনীতির অপরিহার্য অংশ। আমরা এই পরবর্তী প্রজন্মের জন্যই রাজনীতি করি। তাই শেখ হাসিনার সরকার কখনো তরুণদের যৌক্তিক দাবিকে উপেক্ষা করেনি।’
এসময় মন্ত্রী আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বিদ্যমান কোটা পদ্ধতি নিয়ে সমাধান খুঁজে বের করার জন্য এরই মধ্যে মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর কর্তৃপক্ষকে বিশেষ বৈঠকের নির্দেশ দিয়েছেন।’

মন্ত্রী বলেন, ‘কয়েক মিনিট আগেও প্রধানমন্ত্রী আমাকে বলেছেন, তিনি কর্তৃপক্ষকে কোটা পদ্ধতি পরীক্ষা নিরীক্ষা করার নির্দেশ দিয়েছেন। আমি আন্দোলনকারীদের আশ্বস্ত করেছি, তাদের দাবির যৌক্তিকতা আমরা ইতিবাচক হিসেবেই দেখবো।’
রোববার দিবাগত রাতে যারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসভবনে ভাঙচুর চালিয়েছে, তাদের শাস্তি পেতে হবে বলেও জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। ‘গতকাল রোববার মধ্যরাতে উপাচার্যের বাসভবনে তাণ্ডব চালানো হয়েছে। উপাচার্যের পরিবারকে বাগানে পালিয়ে থাকতে হয়েছে। সেখানকার ভিডিও ফুটেজ থেকে এই তাণ্ডবের সঙ্গে যারা জড়িত বলে প্রমাণিত হবে, তাদের শাস্তি পেতে হবে। আমি আন্দোলনকারী মেধাবী তরুণদের প্রশ্ন করেছি, কোটা সংস্কারের সঙ্গে উপাচার্যের সম্পর্ক কী? কোটার সঙ্গে তো তার কোনও সংশ্লিষ্টতা নেই। তাহলে তিনি ও তার বাসভবন, তার পরিবারকে কেন আঘাত করা হবে।’

এসময় তিনি ডিএমপি কমিশনারকে উদ্দেশ্য করে বলেন ‘এখানে ডিএমপি কমিশনার আছেন। তিনি দেখবেন, নিরীহ কেউ যেন গ্রেপ্তার না হয়। যারা সত্যিকার অর্থে তাণ্ডব চালিয়েছে, তাদের বিরুদ্ধেই যেন অ্যাকশন নেওয়া হয়।’ যারা এই আন্দোলনে বিভিন্নভাবে আহত হয়েছেন, তাদের সুচিকিৎসায় সরকার কোনো কার্পণ্য করবে না বলেও জানান তিনি।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর