,

51

৫৬ ব্যাংকে সরকারের কালো থাবা পড়েছে রিজভী

হাওর বার্তা ডেস্কঃ সরকারি-বেসরকারি মিলে দেশে যে ৫৭টি ব্যাংক রয়েছে তার মধ্যে প্রায় ৫৬টি ব্যাংকই ভোটারবিহীন সরকারের কালো থাবায় পড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।
আজ সকালে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এ কথা বলেন। এর আগে সংবাদ সম্মেলন লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন।
তিনি বলেন, ক্ষমতাসীন দলের নেতা কর্মীদের লুটপাটরে সুযোগ করে দিতে যে ঋণ জালিয়াতির ঘটনা এসব ব্যাংকে ঘটছে, তা রীতিমতো আঁতকে ওঠার মতো। তারা ঋণের নামে হাজার হাজার কোটি টাকা নিয়ে বিদেশে পাচার করছে। সেখানে বাড়ি বানাচ্ছে। গতকালও এক মন্ত্রী বলেছেন মন্ত্রীরা এখন বিদেশে বাড়ি বানাচ্ছে।
বিএনপির এই নেতা বলেন, শুধু ব্যাংকিং সেক্টর নয়, বীমা খাতসহ সমস্ত আর্থিকখাতেও চলছে ভয়াবহ নৈরাজ্য। এর আগে শেয়ার বাজার লুট করে লাখ লাখ গ্রাহককে পথে বসিয়ে দিয়েছেন ক্ষমতাসীন দলের লোকেরা। শেয়ার বাজারে সর্বস্ব হারিয়ে বেশ কয়েকজন যুবক আত্মহত্যাও করেছেন।
তিনি আরও বলেন, ‘দেশের এমন কোনো সেক্টর নেই যেটি ক্ষমতাসীনদের থাবায় ক্ষতবিক্ষত হয়নি। টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি, দখলবাজি, চুরি, ডাকাতি, রাহাজানি, নিয়োগ বাণিজ্য আর লুণ্ঠিত সম্পদের কাড়াকাড়ি নিয়ে নিজেরা নিজেদের লোককে হত্যার ঘটনা ক্ষমতাসীনদের এখন নিত্যসঙ্গী।’
রিজভী বলেন, ‘আইনমন্ত্রী বিচার বিভাগ নিয়ে নানা সময়ে নানা মন্তব্য করছেন। উচ্চ আদালত কীভাবে চলবে তা যেন তিনিই ঠিক করছেন। এসব দেখে মনে হয় তিনি যেন প্রধান বিচারপতি।’
প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা ছুটি নিয়ে গত ১৩ অক্টোবর অস্ট্রেলিয়া গেছেন। আগামী ১০ নভেম্বর তার ছুটি শেষ হবে। ছুটি শেষ হলেও তিনি কাজে যোগ দিতে পারবেন কি না তা নিয়ে আইনমন্ত্রীর বক্তব্যেরও সমালোচনা করেন রিজভী।
Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর