,

14

খালেদা জিয়া রোহিঙ্গা শিশুকে কোলে নিয়ে আদর করলেন

হাওর বার্তা ডেস্কঃ বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদীদল (বিএনপি)চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া থাইংখালী ময়নারঘোনায় রোহিঙ্গাদের ত্রাণ বিতরণকালে এক রোহিঙ্গা শিশু দেখে হঠাৎ কোলে তুলে নিয়ে আদর করলেন। এবং শিশুটির মায়ের নিকট থেকে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী,রাখাইন উগ্রবাদীদের নির্যাতনের বর্ণনা জানতে চান। তাদের করুণ কাহিনী শুনে বেগম জিয়া আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন এবং তাদের প্রতি সহানুভূমি প্রকাশ করেন।

এসময় বিএনপি’র চেয়ারপার্সন মিয়ানমার সেনাবাহিনীর বর্বরতার শিকার হয়ে রাখাইন রাজ্যে থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে দ্রুত সময়ের মধ্যে ফিরিয়ে নিতে জাতিসংঘ, ওআইসিসহ বিশে^র বড় বড় দেশ গুলোকে মিয়ানমারের প্রতি চাপ প্রয়োগ করার আহ্বান জানান।

 সোমবার(৩০অক্টোবর) রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ত্রাণ বিতরণ করতে গিয়ে দেয়া বক্তব্যে এ কথা বলেন বিএনপি চেয়ারপার্সন। এই সফরে তিনি মোট ৪৫ ট্রাক ত্রাণ নিয়ে গেছেন বলে জানিয়েছেন তিনি। এই ত্রাণের মধ্যে আছে ১১০ মেট্টিক টন চাল এবং পাঁচ হাজার শিশু ও পাঁচ হাজার সন্তানসম্ভবা নারীর জন্য বিশেষ খাবার। এর মধ্যে খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে বিএনপির প্রতিনিধি দল বিতরণ করছে নয় ট্রাক ত্রাণ। বাকি ত্রাণ হন্তান্তর করা হয়েছে ত্রাণ বিতরণে সমন্বয়ের দায়িত্বে থাকা সেনাবাহিনীর কাছে।

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর সশস্ত্র গোষ্ঠীর হামলার পর সেখানে বসবাসকারী রোহিঙ্গাদের দমনে অভিযান শুরু করে সেনাবাহিনী। তারা নির্বিচারে বাড়িঘর জ্বালিয়ে হত্যা, ধর্ষণসহ নানা নির্যাতন করছে বলে অভিযোগ আছে।

ত্রাণ বিতরণ করতে গিয়ে রোহিঙ্গাদের সঙ্গে কথা বলেন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। পরে সেখানে তিনি বক্তব্য রাখেন প্রায় ১৫ মিনিটর। এই বক্তব্যে তিনি মিয়ানমারের প্রতি রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব নিরাপত্তাসহ অন্যান্য সব ধরনের সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করে ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারের প্রতি পূনরায় আহ্বান জানান। এছাড়া ও অসংখ্য রোহিঙ্গা নারী,পুরুষ এবং শিশুর সাথে সরাসরি কথা বলেন, এবং তাদের দূঃখ দুর্দশার বর্ণনা শুনেন।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর