,

75

নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের পক্ষেই বেশিরভাগ প্রতিনিধি

হাওর বার্তা ডেস্কঃ নির্বাচনকালে সেনা মোতায়েনের পক্ষে মত দিয়েছেন সুশীল সমাজের বেশিরভাগ প্রতিনিধি। সংলাপ শেষে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা।

সোমবার বিকেলে আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের সঙ্গে সংলাপ শেষে এ সংবাদ সম্মেলনে অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে সকাল ১১টায় নির্বাচন ভবনে এ সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়। সংলাপ সঞ্চালনা করেন ইসির ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। এতে ৫৯ জনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। তবে আমন্ত্রিতদের অনেকেই উপস্থিত হননি বলে জানা গেছে।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার জানান, সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন পরিচালনা নিয়ে আলাপ-আলোচনায় বেশিরভাগই নির্বাচনকালে সেনাবাহিনী থাকার পক্ষে মত দিয়েছেন। তবে সেনাবাহিনীকে বাহিনী হিসেবে রাখলে অন্য বাহিনীর ক্ষমতা খর্ব হবে, তাদের কাজ ব্যাহত হবে- এমনও মত দিয়েছেন কয়েকজন।

জানা গেছে, একাদশ সংসদ নির্বাচনকে ভয়মুক্ত ও সবার অংশগ্রহণ নিশ্চিতের মাধ্যমে নির্বাচন কমিশনকে সেনা মোতায়েন ছাড়াও তাদের ভাবমূর্তি পুনরুদ্ধারের তাগিদ দিয়েছেন নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা। নির্বাচনকে সামনে রেখে আইন সংস্কার, সীমানা পুনঃনির্ধারণসহ ঘোষিত রোডম্যাপ নিয়ে নির্বাচনের কমিশনের সঙ্গে সংলাপে তারা এ মত তুলে ধরেন।

সংলাপে সাবেক রাষ্ট্রদূত ওয়ালিউর রহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যায়ের অধ্যাপক তাসনিম সিদ্দিকী, সিপিডির সম্মানিত ফেলো দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য, বিলুপ্ত স্থানীয় সরকার কমিশনের সদস্য অধ্যাপক তোফায়েল আহমেদ, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা এম হাফিজ উদ্দিন খান ও হোসেন জিল্লুর রহমান, অধ্যাপক আসিফ নজরুল প্রমুখ অংশগ্রহণ করেন।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর