,

75032_s2

বাংলাদেশে বল নষ্ট করতে চান না স্টেইন

বাংলাদেশ সফরের পুরোটা সময় হয়তো খেলবেন না দক্ষিণ আফ্রিকার ফাস্ট বোলার ডেল স্টেইন। আরও একটি বিশ্বকাপ খেলার আশায় নিজেকে সুস্থ রাখতে খেলা কমিয়ে দিতে চাইছেন এই পেসার। উইজডেন ইন্ডিয়াকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে স্টেইন বলেন, ‘খেলোয়াড়ি জীবনের এই পর্যায়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে আমার ক্যারিয়ারের অবশিষ্ট বল থেকে কিছু বল নষ্ট করার চাইতে নিজেকে বাঁচিয়ে বড় প্রতিযোগিতাগুলোতে অংশ নেয়ার জন্য নিজেকে প্রস্তুত রাখতে চাই।’ তিনি বলেন, আমি মূলত বাংলাদেশে যেতে চাই আমাদের ভবিষ্যৎ বোলারদের সহায়তা দিতে আর আমার ক্যারিয়ারে যে ১০০০০ বা ২০০০০ বল করা বাকি আছে তা বড় টুর্নামেন্টগুলোতে কাজে লাগাতে। ব্যক্তিগতভাবে এরকমই আমার অবস্থান। আমার ক্যারিয়ারের শুরুতে হলে আমি সবকিছুই করতাম। সব জায়গায়, সব প্রতিযোগিতায় অংশ নিতাম। এখন ওই সবই করে ফেলেছি আমি।’ স্টেইন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এক দশকের বেশি সময়ের টেস্ট খেলুড়ে নয়টি দেশের বিরুদ্ধেই খেলেছেন। ৩১ বছর বয়সী এই ফাস্ট বোলার টেস্টেই বেশি খেলতে চান। টেস্টের তুলনায় সীমিত ওভারের ক্রিকেট তিনি কম খেলেছেন। এই সময়ে তিনি দুটি ৫০ ওভারের ও চারটি ২০ ওভারের বিশ্বকাপ খেলেছেন। তবে অনেক সিরিজেই তাকে বিশ্রামে রাখা হয় সজীব রাখার জন্য। বিশ্বকাপ জিততে না পারার একটা আক্ষেপ তার মধ্যে রয়েছে। স্টেইন বলেন, এটা শুনতে অত্যুক্তি মনে হবে অথবা আত্মকেন্দ্রিক, তবে আমি আমার দেশের জন্য বিশ্বকাপ জিততে চাই। কিন্তু এই সুযোগ প্রতি চার বছরে একবার আসে। টি-২০ বিশ্বকাপ আসে প্রতি দুবছরে। তাই বিনয়ের সঙ্গেই বলছি বাংলাদেশ বা জিম্বাবুয়ের মতো জায়গায় গিয়ে তিনটি ওয়ানডে খেলে আমার আত্মবিশ্বাসে কিছুই হবে না যেখানে আমি আরও একটি বিশ্বকাপ খেলতে চাই।’ এর মানে হলো আগামী জুলাইতে সিনিযর কয়েকজন খেলোয়াড়কে ছাড়াই বাংলাদেশ সফরে যাবে। এই সফরে তারা দুটি টি-২০, তিনটি ওয়ানডে ও দুটি টেস্ট খেলবে। স্টেইন ছাড়াও এবি ডিভিলয়ার্স, জে পি ডুমিনি, মরনে মরকেলও এই বাংলাদেশ সফরে নাও যেতে পারেন। তিনজনই তাদের প্রথম সন্তানের অপেক্ষায় দিন গুনছেন। এর ফলে এবার প্রোটিয়া দলে নতুন কয়েকজন খেলোয়াড়কে দেখা যেতে পারে। এদের মধ্যে ফাস্ট বোলার মারচেন্ট ডি ল্যাঙ্গ ও কাগিসো রাবাদার সম্ভানা উজ্জ্বল। এই সফরে তারা নতুন এক কোচের অধীনের খেলার সুযোগ পাবে। বিশ্বকাপের পর দক্ষিণ আফ্রিকার বোলিং কোচ অ্যালান ডোনাল্ড তার চুক্তি নবায়ন করার আবেদন করেননি। তার স্থানে চার্লস ল্যাঙ্গাভেল্ট দায়িত্ব পেতে পারেন বলে ধারনা করা হচ্ছে। এটা আগামী মাসে চ্থড়ান্ত করা হবে। না খেললেও স্টেইনকে নতুনদের উদ্বুদ্ধকারী হিসেবে বাংলাদেশ সফরে যাওয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে। জানুয়ারিতে আলভিরো পিটারসেন অবসর নেয়ায় দক্ষিণ আফ্রিকা এই সফরে নতুন একজন ওপেনার দলে নিতে হবে। কোবরা দলের বাঁ হাতি ওপেনার স্টিয়ান ভ্যান জিলের খেলার সম্ভাবনা রয়েছে। অভিষেক টেস্টে সেঞ্চুরিও রয়েছে তার।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর