,

1469803090

সরকারি পয়সায় তৈরি হয় জঙ্গি : শোলাকিয়ার ইমাম

সরকারি পয়সায় জঙ্গি তৈরি করা হয় বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামা চেয়ারম্যান ও কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া ঈদগাহ’র গ্র্যান্ড ইমাম আল্লামা ফরিদ উদ্দিন মাসঊদ।

শুক্রবার রাজধানীর খিলগাঁও ইকরা বাংলাদেশ মিলনায়তনে ‘২৯ জুলাই সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ দিবস’ পালন উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় তিনি এমন মন্তব্য করেন।

এ আলোচনা সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামা।

তিনি বলেন, মাদরাসাশিক্ষা বোর্ড সরকারি পয়সায় চলে। সরকারি পয়সায় সিলেবাস, তাদের পাঠ্যবইতে জঙ্গিবাদ এবং উগ্রবাদী শিক্ষায় ভরপুর। একাধিক বই, একাধিক ক্লাসে জঙ্গিবাদী এবং উগ্রবাদী চেতনায় ভরপুর।

শিক্ষামন্ত্রীর সমালোচনা করে ফরিদ উদ্দিন মাসঊদ বলেন, শিক্ষামন্ত্রী থাকেন কোথায়? কোন দেশে বসবাস করেন তিনি আমি জানি না।

তিনি বলেন, আমাদের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে যারা আছেন- একটু বাংলাদেশের মাটিতে পা

রাখুন। আমি অনুরোধ রাখি, আপনাদের নামে যে বই সরকারি পয়সায় ছাপা হয়েছে, এ বইগুলো একটু পড়ে দেখুন।

ফরিদ উদ্দিন মাসঊদ বলেন, জঙ্গিবাদ শিক্ষা দেব, জঙ্গিবাদের চেতনা লালন করবো, জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে কথা বলবো, আইন করবো এসব দিয়ে জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে না।

জঙ্গি তৈরির পেছনে শিক্ষাব্যবস্থাকে দায়ী করে তিনি বলেন, শিক্ষাব্যবস্থা ব্যর্থ। এর প্রমাণ আজকে উচ্চশিক্ষিত হওয়ার পরও তরুণরা নিষ্ঠুর ও বিভ্রান্ত পথে যাচ্ছে।

শোলাকিয়া ঈদগহ’র এই ইমাম বলেন, শিক্ষাব্যবস্থাকে ঢেলে সাজানো দরকার। প্রতিটি স্তরে ইসলাম ও ধর্মের নৈতিকতা শিক্ষাকে মূল শিক্ষা হিসেবে রাখা দরকার। তা না করা হলে এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে এক দু’জন নয় হাজার হাজার জঙ্গি, উগ্রবাদী বের হবে।

সরকারকে স্পষ্ট ভাষায় তিনি বলেন, যতক্ষণ পর্যন্ত এদেশ থেকে জামায়াত-শিবিরকে উৎখাত না করা যাবে ততক্ষণ পর্যন্ত জঙ্গিবাদকে উৎখাত ও বন্ধ করা যাবে না।

ফরিদ উদ্দিন মাসঊদ বলেন, সরকার জামায়াতের প্রতিষ্ঠানকে আর্থিক সুরক্ষা দিয়ে যাচ্ছে। যে দেশে জামায়াত-শিবিরের মতো দল আছে সে দেশে আইএস নতুন করে থাকবার দরকার নেই।

তিনি বলেন, আইএসের নামে জামায়াত-শিবির প্রক্সি দিচ্ছে। দেশে জঙ্গিবাদকে প্রতিরোধ ও রুখতে হলে এ মুহূর্তে জামায়াত-শিবিরকে নিষিদ্ধ করতে হবে। সরকার জামায়াত নিষিদ্ধ করতে লজ্জা পাচ্ছে।

জঙ্গি দমনে একটি কার্যকারী গবেষণা সেল গঠনের দাবি জানিয়ে ফরিদ উদ্দিন মাসঊদ বলেন, আজকের তরুণদের মন, মনন ও চেতনাকে বুঝতে না পারলে জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ সম্ভব হবে না।

বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামা সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা আবদুর রহিমের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইকরা বাংলাদেশের প্রিন্সিপাল মাওলানা আরিফ উদ্দিন মাহুমুদ প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর