,

1457865834

ব্যক্তিগত তথ্য দিতেই হবে ভাড়াটিয়াদের

ভাড়াটিয়াদের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে করা রিট খারিজ করে দিয়েছে হাইকোর্ট। এর ফলে ভাড়াটেদের ব্যক্তিগত তথ্য দিতেই হবে।

ঢাকার নাগরিকদের ব্যক্তিগত তথ্য নেয়া বন্ধে নির্দেশনা চেয়ে যে রিট আবেদনটি করা হয়েছিল সেটি খারিজ করে দিয়েছেন বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি ইকবাল কবির লিটনের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ। আজ এ আদেশ দেন।

ভাড়াটিয়াদের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী জ্যোতির্ময় বড়ুয়া গত ৩ মার্চ এ রিট

আবেদনটি করেন। আবেদন করে জ্যেতির্ময় বড়ুয়া বলেছিলেন, জননিরাপত্তার স্বার্থে তিনি এ রিট আবেদনটি করেছেন।

আবেদনটি খারিজ করে দিয়ে আদালতের বিচারকরা বলেছেন, তথ্য দিয়ে কেউ ক্ষতিগ্রস্ত হলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

গত ২৯ ফেব্রুয়ারি ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার এক সংবাদ সম্মেলনে জানান আগামী ১৫ মার্চের মধ্যে ঢাকা শহরের সব বাড়ির মালিক এবং ভাড়াটিয়াদের তথ্য পুলিশের কাছে জমা দিতে হবে।

বেশ কয়েক মাস আগে পুলিশের তরফ থেকে ঢাকা শহরের বিভিন্ন এলাকায় বাড়ির মালিক এবং ভাড়াটিয়াদের তথ্য আদায়ের জন্য ফরম বিতরণ করা হয়েছিল।

প্রতিটি গৃহস্থালির কর্তাব্যক্তির নাম-ঠিকানা ছাড়াও পরিবারের অন্য সদস্যদের বিস্তারিত পরিচয় এবং গৃহকর্মী ও ড্রাইভার থাকলে তাদের পরিচয়ও দিতে হবে।

পুলিশ বলছে, জঙ্গি কার্যক্রম দমন এবং শহরকে আরো নিরাপদ হিসেবে গড়ে তোলার জন্যই এসব তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে।

এভাবে ব্যক্তিগত তথ্য চাওয়ার মতো কোনো আইনি সুযোগ পুলিশের নেই দাবি করে তথ্য সংগ্রহের কার্যক্রম বন্ধে রিট আবেদনটি করেছিলেন জ্যোতির্ময় বড়ুয়া। আজ আদালত রিটটি খারিজ করে দিয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর