,

1452409595

নতুন নেতৃত্বের সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে:সৈয়দ আশরাফ

নতুন প্রজন্ম দেশের ভবিষ্যত উল্লেখ করে জনপ্রশাসন মন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, নিয়মিত সম্মেলনের মাধ্যমে দলের মধ্যে নতুন নেতৃত্বের সৃষ্টি করতে হবে।

শুক্রবার বিকেলে কিশোরগঞ্জ পুরাতন স্টেডিয়ামে আয়োজিত জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির ভাষণে এসব কথা বলেন তিনি। তিনি বলেন, নতুনদেরকে তাদের যোগ্যতার প্রমাণ দেয়ার সুযোগ দিতে হবে। প্রধানমন্ত্রী নিজেও ‘ভারপ্রাপ্ত’দের কাঁধ থেকে ‘ভার’ মুক্ত করার তাগিদ দিয়েছেন।

দেড় যুগ পর কিশোরগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এটা কোনো গৌরবের বিষয় নয়। নিয়মিত সম্মেলন না হলে দল ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং দলে কোনো গতিশীলতা থাকেনা। নতুনদের নেতৃত্বে আসার পথ রুদ্ধ হয়ে যায়।

সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম তার বক্তব্যের শেষ পর্যায়ে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে অ্যাডভোকেট কামরুল আহসান শাহজাহান ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে অ্যাডভোকেট এম এ আফজলের নাম ঘোষণা করেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী এবং অন্যান্য নেতৃবৃন্দের সঙ্গে আলাপ-আলোচনার পর সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কামরুল আহসান শাহজাহানের সভাপতিত্বে এবং ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এম এ আফজলের সঞ্চালনায় সম্মেলনে আরো বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম, পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম এমপি, বাংলাদেশ ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক আহম্মদ হোসেন, সহ-সম্পাদক মশিউর রহমান, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ড. আব্দুর রাজ্জাক, বাণিজ্য ও শিল্প সম্পাদক আব্দুস সাত্তার, উপ-প্রচার সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক বদিউল ইসলাম ডাবলু প্রমুখ। এসময় মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন রেজওয়ান আহম্মদ তৌফিক এমপি, অ্যাডভোকেট মো. সোহরাবউদ্দিন এমপি, মো. আফজল হোসেন এমপি, দিলারা বেগম আসমা এমপি, জেলা পরিষদের প্রশাসক অ্যাডভোকেট মো. জিল্লুর রহমান প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর