,

২১

ছেলের আশায় একে একে তিন মেয়ের পর একসঙ্গে তিন ছেলে

হাওর বার্তা ডেস্কঃ প্রথম সন্তান মেয়ে। এরপর এক ছেলের আশায় ঘরে আসে পরপর আরও দুই মেয়ে। আশা ছিল একটি ছেলে হবে। এবার সেই আশা পূর্ণ হয়েছে। তবে একটা নয়, একসঙ্গে তিন–তিনটা ছেলেসন্তান জন্ম দিয়েছেন মা জলি বেগম। এতে খুশিতে আত্মহারা নাটোরের বাগাতিপাড়ার হেলাল উদ্দিন ও জলি বেগম নামের ওই দম্পতি।

তাদের বাসা উপজেলার কোয়ালীপাড়া গ্রামে। হেলাল স্থানীয় একটি কারিগরি কলেজের ল্যাব সহকারী পদে চাকরি করেন। আর জলি বেগম গৃহবধূ। জানা গেছে, হেলাল উদ্দিনের সঙ্গে জলি বেগমের বিয়ে হয় ২০০১ সালে। এই দম্পতির প্রথম ও দ্বিতীয় সন্তান হয় মেয়ে। ছেলের আশায় আবার সন্তান নেন। সেবারও জন্ম নেয় একটি মেয়ে। তবু ছেলে সন্তানের আশা ছাড়েননি। শনিবার সকালে একসঙ্গে তিনটি ছেলে সন্তানের জন্ম দেন জলি বেগম (৩৮)।

এর আগে, প্রসবব্যথা উঠলে শনিবার সকালে তাকে বাগাতিপাড়া উপজেলার দয়ারামপুরের একটি ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়। সেখানে স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় তিনটি সন্তানের জন্ম হয়। পরে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য নবজাতকদের নাটোর আধুনিক হাসপাতালে নেওয়া হয়। মা ও তিন সন্তানের সবাই সুস্থ বলে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।
জলি বেগমের স্বামী হেলাল উদ্দিন বলেন, ছেলেসন্তান না হওয়ায় মনের ভেতরে সামান্য কষ্ট ছিল, এটাই স্বাভাবিক। এবার একসঙ্গে তিনটি ছেলেসন্তান হওয়ায় সৃষ্টিকর্তার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর