,

1

বাংলাদেশে নিজস্ব ব্র্যান্ডের মোটরগাড়ি তৈরি হবে

হাওর বার্তা ডেস্কঃ বাংলাদেশে নিজস্ব ব্র্যান্ডের মোটরগাড়ি উৎপাদন করতে শিল্প মন্ত্রণালয় কাজ করছে বলে জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন। তিনি জানান, জাপানের মিত্সুবিশি করপোরেশনের কারিগরি সহায়তায় রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান প্রগতি ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড এই মোটরগাড়ি উৎপাদন করবে। এতে দেশের মানুষ কম দামে তা পাবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।

গতকাল সোমবার শিল্প মন্ত্রণালয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত নাওকি ইতোর সঙ্গে বৈঠকে শিল্পমন্ত্রী এসব কথা বলেন। বৈঠকে মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব বেগম পরাগসহ মন্ত্রণালয় ও জাপান দূতাবাসের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন কালের কণ্ঠকে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অঙ্গীকার ছিল নিজস্ব ব্র্যান্ডের মোটরগাড়ি বানানোর। এ লক্ষ্যে শিল্প মন্ত্রণালয় থেকে প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। নিজস্ব ব্র্যান্ডের মোটরগাড়ি তৈরি করা সম্ভব হলে দেশের মানুষ কম দামে তা ব্যবহারের সুযোগ পাবে।

গাড়ি বানানোর প্রস্তুতির বিষয়ে তিনি বলেন, নিজস্ব ব্র্যান্ডের গাড়ি তৈরির বিষয়ে তাঁরা প্রস্তুতি শুরু করেছেন।

বৈঠকে শিল্পমন্ত্রী বলেন, নিজস্ব ব্র্যান্ডের গাড়ি উৎপাদন করতে খুব শিগগির অটোমোবাইল ইন্ডাস্ট্রি ডেভেলপমেন্ট পলিসি-২০২০ চূড়ান্ত করা হবে। এ নীতির আলোকে অটোমোবাইল শিল্প খাতে জাপানের কারিগরি সহায়তা প্রদানের সুযোগ উন্মুক্ত হবে।

বৈঠকে বাংলাদেশের শিল্প খাতে জাপানি বিনিয়োগের বিষয়ে আলোচনা হয়। বাংলাদেশে নিজস্ব ব্র্যান্ডের মোটরগাড়ি উৎপাদন, জাতীয় শিল্পনীতি-২০২১ প্রণয়ন ও শিল্প ডাটাবেইস তৈরিতে জাপানের কারিগরি সহায়তা, মোটরসাইকেল শিল্পের আধুনিকায়নসহ নানা দ্বিপক্ষীয় স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনায় স্থান পায়।

সার কারখানাগুলোতে জাপানের দীর্ঘদিন ধরে চলমান প্রযুক্তিগত সহায়তার কথা উল্লেখ করে শিল্পমন্ত্রী রাষ্ট্রায়ত্ত চিনিকলগুলোর আধুনিকায়ন, কৃষিভিত্তিক শিল্প-কারখানা স্থাপন, কৃষিপণ্য ও খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ, হালকা প্রকৌশল শিল্পের উন্নয়ন এবং ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের জন্য ভেন্ডর উন্নয়নে বিনিয়োগে এগিয়ে আসতে জাপানের রাষ্ট্রদূতের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

জাপানের রাষ্ট্রদূত বলেন, করোনা মহামারি মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গৃহীত দূরদর্শী পদক্ষেপের ফলে বাংলাদেশে বিনিয়োগের ইতিবাচক পরিবেশ তৈরি হয়েছে। জাপানের মিত্সুবিশিসহ অন্যান্য অটোমোবাইল শিল্পোদ্যোক্তারা বাংলাদেশে বিনিয়োগ বাড়াতে আগ্রহী। বাংলাদেশের নিজস্ব ব্র্যান্ডের মোটরগাড়ি উৎপাদনে জাপান কারিগরি সহযোগিতা দেবে জানিয়ে তিনি বলেন, চিনিকলের আধুনিকায়নের বিষয়টি তাঁরা গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করবেন।

নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজারে স্থাপিত জাপান ইকোনমিক জোন গুণগত মানের দিক থেকে এশিয়ায় শীর্ষে রয়েছে বলে জানান জাপানি রাষ্ট্রদূত।

প্রসঙ্গত, ২০০৯ সালে তৎকালীন শিল্পমন্ত্রী দিলীপ বড়ুয়া তাঁর মেয়াদের মধ্যে সেডান গাড়ি উৎপাদনের ঘোষণা দেন। তবে তা বাস্তবায়িত হয়নি। এর পরের মেয়াদে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমুও বাংলাদেশে নিজস্ব ব্র্যান্ডের গাড়ি উৎপাদনে তেমন কোনো পদক্ষেপ নেননি।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর