,

11

ট্রাম্প আবারও রিপাবলিকানদের মনোনয়ন পেলেন

হাওর বার্তা ডেস্কঃ জো বাইডেন, চীন এবং সমাজতন্ত্রের তুমুল সমালোচনার মধ্যে দিয়ে শুরু হলো যুক্তরাষ্ট্রের রিপাবলিকান পার্টির জাতীয় সম্মেলন। দলটির নীতি নির্ধারকদের দাবি, চীনের প্রভাব থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে মুক্ত রাখতে চাইলে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী বাইডেনকে প্রতিহত করার বিকল্প নেই। সম্মেলনের প্রথম দিনেই নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন চূড়ান্ত হয় ট্রাম্পের।

মহামারি পরিস্থিতিতে, গেলো সপ্তাহেই, ডেমোক্রেটিক পার্টির সম্মেলন হলো ভার্চুয়াল অংশগ্রহণে। তবে, সোমবার রাতে রিপাবলিকান পার্টির সম্মেলন শুরু হলো নেতা-কর্মীদের শারীরিক উপস্থিতিতেই।

চার দিনের জাতীয় কনভেনশনের প্রথম দিনেই, প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে দ্বিতীয় বারের মতো ডোনাল্ড ট্রাম্পকে মনোনীত করেন ডেলিগেটরা। আনুষ্ঠানিকভাবে প্রার্থিতা চূড়ান্ত হতে দরকার ছিল ১ হাজার ২৭৬ প্রতিনিধির সমর্থন। ২ হাজার ৬৪ ভোট পেয়ে মনোনয়ন নিশ্চিত করেন ট্রাম্প। এসময় রিপাবলিকান নীতিনির্ধাকরা ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনকে বামপন্থি বলে অভিহিত করেন।

সাবেক প্রসিকিউটর কিম্বার্লি গিলফয়েল বলেন, আমি ল্যাটিন বংশোদ্ভুত, এই দেশে প্রসিকিউটরের দায়িত্ব পালন করেছি। তাই এটা নিশ্চয়তা দিবে পারি ট্রাম্পের নেতৃত্বেই মধ্যবিত্ত এবং অভিবাসীরা সবচেয়ে নিরাপদ। বাইডেনের মতো সমাজতান্ত্রিক নেতা ক্ষময়তায় আসলে দেশের সব চাকরি চলে যাবে চীনের কাছে।

জাতিসংঘে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রতিনিধি নিকি হ্যালি বলেন, ইরান এবং উত্তর কোরিয়াকে চাপে রাখার পাশাপাশি, ইসরায়েলকে স্বীকৃতিও দিয়েছেন ট্রাম্প। সবচেয়ে বড় বিষয় জঙ্গি গোষ্ঠী আইএসকে পরাজিত করতে বিশ্বব্যাপি ট্রাম্পের বলিষ্ঠ নেতৃত্ব ছিলো সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ন। জো বাইডেন ইরান কিংবা কমিউনিস্ট চীনের জন্য উপকারে আসবেন, কিন্তু যুক্তরাস্ট্রের জন্য নয়।

মনোনয়ন নিশ্চিত হওয়ার পর দেয়া ভাষণে ট্রাম্প অভিযোগ করেন, বাইডেনকে জয়ী করতে নির্বাচনে জালিয়াতির ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।

ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, নির্বাচনে আমাদের জয় ছিনিয়ে নিতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করছে বিরোধীরা। তারা কারচুপির চেষ্টা করছে তাই সতর্ক থাকার বিকল্প নেই। এ মুহুর্তে সবচেয়ে ঝুঁকিতে ডাকের মাধ্যমে ৮ কোটি ভোট। কারণ সেখানেই জালিয়াতির চেষ্টা হবে সবচেয়ে বেশি। কোনোভাবেই যুক্তরাষ্ট্রকে ভুল নেতৃত্বের হাতে তুলে দেবেন না।

সম্মেলনে ট্রাম্প পরিবার থেকেই বক্তা ছিল ৫ জন। এ তালিকা নিয়ে চলছে বিতর্ক। বৃহস্পতিবার কনভেনশনের শেষ দিন আনুষ্ঠানিক মনোনয়ন গ্রহণ করবেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর