,

39

খাসির স্পেশাল কাবাবের রেসিপি

হাওর বার্তা ডেস্কঃ কোরবানির ঈদ মানেই তৃপ্তি সহকারে মাংস খাওয়া। তবে একনাগাড়ে কয়েকদিন মাংস খেতে একদমই ভালো লাগে না। তাই স্বাদ বদলাতে খেতে পারেন কাবাব। পোলাও বা বিরিয়ানির সঙ্গে কাবাব হলে তো কথাই নেই। আর তাই আজ খাসির দুইটি কাবাবের রেসিপি জানাবো আপনাদের। খুব সহজে বাড়িতে এই কাবাব দুটি বানিয়ে খেতে পারবেন। জেনে নিন রেসিপিগুলো-

খাসির মগজ কাবাব

উপকরণ: সিদ্ধ করা মগজ আধা কেজি, আলু দুইটি, বেসন দুই টেবিল চামচ, আদা বাটা এক টেবিল চামচ, রসুন বাটা এক চা চামচ, মরিচ বাটা এক চা চামচ, হলুদ বাটা আধা চা চামচ, গরম মসলা গুঁড়া এক চা চামচ, কাবাব মসলা এক চা চামচ, ডিম দুইটি, লবণ স্বাদ মতো, বিস্কুটের গুঁড়া এক কাপ, তেল এক কাপ।

প্রণালী: প্রথমে আলু ও মগজ আলাদা আলাদা চটকে নিন। মগজগুলো আধা ভাঙা হলেও চলবে। এবার এর সঙ্গে আলু, বেসন, লবণ এবং সব গুঁড়া ও বাটা মসলা মিশিয়ে নিন। অন্য একটি বাটিতে ডিম ফেটিয়ে নিন। এবার মগজের মিশ্রণ থেকে পরিমাণ মতো নিয়ে কাবাব তৈরি করুন। ডিমে ডুবিয়ে বিস্কুটের গুঁড়ায় গড়িয়ে ভেজে তুলুন কাবাব। সস বা পোলাওয়ের সঙ্গে প্রিয় জনকে গরম গরম পরিবেশন করুন মজাদার খাসির মগজ কাবাব।

খাসির কাটলেট

উপকরণ: খাসির মাংসের মিহি কিমা দুই কাপ, মাংস ছাড়া পাঁজরের হাড় দুই ইঞ্চি চওড়া ও দুই ইঞ্চি লম্বা করে কাটা আট থেকে দশ টুকরা, আদা বাটা এক টেবিল চামচ, পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ, টালা জিরা ও ধনিয়া গুঁড়া দুই চা চামচ, পাউরুটি দুই টুকরা, ডিম একটি, কাঁচা মরিচ স্বাদ মতো, লবণ স্বাদ মতো, ভিনেগার দুই চা চামচ।

প্রণালী: প্রথমে একটি বাটিতে সব মসলা এবং ভিনেগার দিয়ে কিমা মেরিনেট করে তিন ঘণ্টা রেখে দিন। পাঁজরের হাড়গুলো একটু হলুদ ও লবণ দিয়ে সিদ্ধ করুন। পাউরুটি পানিতে ভিজিয়ে তুলে ভালোভাবে চিপে রাখুন। এবার ডিম ও পাউরুটি কিমার সঙ্গে মিশিয়ে নিন। পাঁজরের হাড়ে চেপে চেপে কিমা লাগিয়ে কাকলেট বানিয়ে নিন। ডুবন্ত তেলে ভেজে নামিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার খাসির কাটলেট।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর