,

2

মন্ত্রীসভার রদবদল, আলোচনায় শামীম ওসমান

হাওর বার্তা ডেস্কঃ করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যেই রদবদল ঘটতে যাচ্ছে মন্ত্রীসভায়। আর এ রদবদলে আবারও আলোচনায় উঠেছে আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী এমপি শামীম ওসমানের নাম। যদিও দু’বার তাকে মন্ত্রীত্ব সাধা হয়েছে;

কিন্তু নেননি বলে দাবি করেছেন তিনি নিজেই। তবে, এবার সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে সংসদেও শামীম ওসমানকে মন্ত্রী বানানোর দাবী উঠেছে।

আওয়ামীলীগের একটি সূত্র গণমাধ্যমের কাছে দাবী করেছেন, চলতি বাজেট অধিবেশন শেষে যেকোনো সময় এই অন্তর্ভুক্তির সম্ভাবনা রয়েছে। এর পাশাপাশি সীমিত আকারে আবারও মন্ত্রিসভায় রদবদল হতে পারে।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহর মৃত্যুর পর এই মন্ত্রণালয় এখন মন্ত্রীশূন্য। করোনাভাইরাস সংক্রমণের পর সবচেয়ে বেশি আলোচনায় রয়েছে দেশের স্বাস্থ্য খাত। এরই মধ্যে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একজন সচিবকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

স্বাস্থ্য খাত নিয়ে নানা আলোচনা-সমালোচনায় সরকারের উচ্চ পর্যায় অসন্তুষ্ট। তাই এই মন্ত্রণালয় নিয়েও আসতে পারে নতুন কোন সিদ্ধান্ত।

২৩ জুন জাতীয় সংসদে শামীম ওসমানকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়ার দাবি তুলেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের বিএনপি সমর্থিত এমপি হারুনুর রশীদ।

এদিকে, চলমান পরিস্থিতিতে নারায়ণগঞ্জের স্বাস্থ্যখাতে শামীম ওসমানের প্রশংসনীয় ভূমিকা নারায়ণগঞ্জবাসীর মনে আশার আলো জাগিয়েছে।

এরপর থেকে জেলার বিভিন্ন স্যোশাল মিডিয়ায়ও শামীম ওসমানকে মন্ত্রী হিসেবে দেখতে জোর দাবি তুলা হয়।

প্রসঙ্গত, শামসুজ্জোহার ছেলে শামীম ছাত্রলীগ হয়ে আসেন আওয়ামী লীগে।

তোলারাম কলেজ ছাত্র সংসদের ভিপি ছিলেন তিনি। ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় যাওয়ার পর বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার রোড মার্চের গাড়িবহর আটকে ব‌্যাপকভাবে আলোচনায় এসেছিলেন তিনি।

এরপর ২০১১ সালে সিটি করপোরেশন নির্বাচন, ত্বকী হত‌্যা ও ৭ খুন নিয়ে তাকে জড়িয়ে ব‌্যাপকে আলোচনা-সমালোচনা, ২০১৪ সালের অগাস্ট মাসে টেলিভিশন টক শোতে মেয়র আইভীর সাথে কথা কাটাকাটি, ওসমান পরিবারের পক্ষে শেখ হাসিনার কথা বলা নিয়েও বেশ আলোচিত হন।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর