,

7

পাকিস্তানের নাগরিকত্ব চেয়ে আবেদন স্যামির

হাওর বার্তা ডেস্কঃ পাকিস্তান নিজেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের জন্য নিরাপদ প্রমাণে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালাচ্ছে। শ্রীলঙ্কার পর  বাংলাদেশকে হোম সিরিজ খেলতে নিয়েছে তারা। একটি আইসিসির ইভেন্ট আয়োজনে চেষ্ঠা চলাচ্ছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান এহসান মানি। এর মাঝেই পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের জন্য খুশির সংবাদ এনে দিলেন ড্যারেন স্যামি। দুইবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপজয়ী এই ক্যারিবীয় তারকা পাকিস্তানের নাগরিকত্ব চেয়ে আবেদন করেছেন।
বৃহস্পতিবার শুরু হয়েছে পঞ্চম পাকিস্তান সুপার লীগ (পিএসএল)। প্রথমবারের মতো পাকিস্তানেই পুরো টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকে স্বস্তি দিচ্ছে এই পিএসএলে অংশ নেওয়া বিদেশি ক্রিকেটারের সংখ্যা। ৩৬ জন বিদেশি ক্রিকেটার অংশ নিচ্ছে এবার।

ড্যারেন স্যামি এঁদেরই একজন। পেশোয়ার জালমির অধিনায়ক অবশ্য পিএসএলের নিয়মিত মুখ। যেখানে বিদেশি অনেক ক্রিকেটার পাকিস্তানে যেতে চান না, সেখানে পাকিস্তানের নাগরিকত্ব নিয়ে নিতে চাচ্ছেন স্যামি। পেশোয়ার জালমির মালিক জাভেদ আফ্রিদি জানিয়েছেন, পিএসএলের সুবাদে পাকিস্তানের আপন হয়ে ওঠা স্যামির জন্য আবেদন করেছেন তারা, ‘আমরা ড্যারেন স্যামির জন্য সম্মানসূচক নাগরিকত্ব চেয়েছি। আপাতত এ আবেদন প্রেসিডেন্টের দপ্তরে আছে। আমি পিসিবি চেয়ারম্যানকেও বলেছি স্যামির হয়ে কথা বলার জন্য, যেন এ আবেদন পাশ হয়। পিএসএলের দ্বিতীয় মৌসুমের ফাইনাল যখন লাহোরে আয়োজনের চেষ্টা চলছে তখন স্যামি যে কথাগুলো বলেছিল তা হৃদয় ছুঁয়ে যাওয়ার মতো।’ স্যামিও বিদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে সবার আগে পাকিস্তানে এসেছেন। পাকিস্তানের প্রতি ভালোবাসা এবারও প্রকাশ করতে কোনো রাখঢাক রাখেননি সাবেক ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক, ‘আমি চাই পঞ্চম পিএসএল সবচেয়ে সেরা হোক। খেলোয়াড় ও ভক্ত হিসেবে চলুন আমরা বিশ্বকে দেখিয়ে দিই, ক্রিকেট খেলার জন্য পাকিস্তান কত দুর্দান্ত। এখানে এসে ভালো লাগছে। আমিই প্রথম এলাম। পাকিস্তানে এ টুর্নামেন্ট হওয়াতে আমি খুবই উল্লসিত। ২০১৭ সালে লাহোরের ফাইনাল ছিল ক্রিকেট ও পুরো পিএসএল টুর্নামেন্টকে এখানে আনার প্রথম ধাপ। আমি সারা জীবন বলেছি, আমি ঘরে ও বাইরে ক্রিকেট খেলছি। আমি জানি মানুষ ঘরের মাঠে তারকাদের দেখতে পছন্দ করে এবং পাকিস্তানের খেলোয়াড়রা এ স্বাদ পাচ্ছিল না।’

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর