,

22

বায়তুল মুকাদ্দাস রক্ষায় মসজিদের খতিবদের আন্দোলনের ডাক

হাওর বার্তা ডেস্কঃ মুসলিম উম্মাহর প্রথম কেবলা ফিলিস্তিনের বায়তুল মোকাদ্দাস। মুসলিমদের এ পবিত্র স্থাপনা রক্ষায় মধ্যপ্রাচ্যের তেলসমৃদ্ধ ছোট্ট দেশ কুয়েতের প্রতিটি মসজিদ থেকে দুর্বার প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন খতিবরা।

দেশটির প্রতিটি মসজিদে জুমআর খোতবায় পুণ্যনগরী জেরুজালেম ও মসজিদে আকসার স্বাধীনতার জন্য উপস্থিত মুসল্লিদের প্রতি আহ্বান জানান।

ওয়াফা নিউজ এজেন্সির তথ্য মতে, ৭ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার পুরো দেশজুড়ে জুমআর মসজিদের খুতবার বিষয় ছিল ‘আরব ও মুসলমানদের হৃদয়ে আল-আকসার মর্যাদা ও মাহত্ম্য। সে কারণে প্রত্যেক মসজিদের খতিবরাও আল-কুদস খ্যাত জেরুজালেম এবং বায়তুল মুকাদ্দাসের গুরুত্ব নিয়ে আলোচনা করেন।

জুমআর আলোচনায় খতিবরা বলেন, ‘পবিত্র ভূমি, ধর্মীয় স্থাপনা, মানুষের অধিকার এবং চিরসত্য ইসলাম ধর্মের সম্মান ও মর্যাদা রক্ষা করা প্রত্যেক মুসলমানের দায়িত্ব ও গৌরব। ইসলামের পবিত্র নগরী আল কুদস খ্যাত জেরুজালেম ও পবিত্র মসজিদ বায়তুল মুকাদ্দাসের রয়েছে স্বতন্ত্র সম্মান ও মাহত্ম্য।

মর্যাদার বিবেচনায় বায়তুল মুকাদ্দাস ইসলাম ধর্মের তৃতীয় পবিত্রতম স্থান। এ জন্য জীবন উৎসর্গ করে হলেও এটি রক্ষা করা প্রতিটি মুসলমানের ঈমানি দায়িত্ব বলে উল্লেখ করেন ইমামরা।

খতিবরা আরও বলেন, ‘ফিলিস্তিনের রাজধানী আল-কুদসের (জেরুজালেম) জন্য সবচেয়ে বিপদজনক ব্যাপার হল, প্রকৃত মালিকদের থেকে নগরীটি কেড়ে নেয়া হয়েছে এবং অত্যন্ত জোরজবরদস্তি করে অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইল এটিকে নিজেদের রাজধানীর স্বীকৃতি দিয়েছে। এটি মুসলমানদের ওপর দখলদার ইয়াহুদিদের চরম জুলুম ও দখলদারিত্বের ভয়াবহ আগ্রাসন।
কুয়েতের প্রতিটি মসজিদের সম্মানিত খতিবরা একযোগে ইয়াহুদিদের প্রতিরোধে এবং বায়তুল মুকাদ্দাস পুনরুদ্ধার ও রক্ষায় ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।

মিথ্যাকে দূর করার এবং সত্যকে প্রতিষ্ঠা করার সময় এখনই। বিশ্ব মুসলিম যদি এখনও ঐক্যবদ্ধ হতে না পারে তাহলে তাদের সামনে আরও ভয়ঙ্কর ও অপ্রত্যাশিত কিছু ঘটবে বলেও জানান খতিবরা।

Khatib-1

এদিকে আরব টাইমসের খবরে জানা যায়, কুয়েতের জাতীয় সংসদের স্পিকার মারজুক আল গানিম মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কথিত ‘ডিল অব দ্য সেঞ্চুরি’র কঠোর সমালোচনা করে এর একটি কপি ডাস্টবিনে ফেলেছেন।

শনিবার ৮ ফেব্রুয়ারি আরব দেশগুলোর সংসদীয় ইউনিয়নের জরুরি বৈঠকে সবার সামনে এভাবেই নিজের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন এ স্পিকার।

স্পিকার মারজুক আল গানিম বলেন, তারা টাকার বিনিময়ে আমাদের পবিত্র ভূমি নিয়ে নিতে চায়, আমরা প্রস্তাব করছি আমরা আপনাদের চেয়ে কয়েক গুণ বেশি টাকা দেব, কিন্তু শর্ত হল আমাদের পবিত্র ভূমি থেকে সরে যেতে হবে।

এ কথা বলতে বলতে তিনি ট্রাম্পের কথিত ‘ডিল অব দ্য সেঞ্চুরি’র একটি কপি তার আসনের পাশে থাকা ডাস্টবিনে ছুড়ে ফেলেন। এ সময় তিনি বলেন, মার্কিন পরিকল্পনার উপযুক্ত স্থান হচ্ছে এই ডাস্টবিন।’

তিনি সব মুসলিম দেশের প্রতি আহ্বান জানান, ‘বিশ্ব মুসলিমের উচিৎ এই পরিকল্পনা প্রত্যাখ্যান করা এবং দখলদার ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার মতো হঠকারি তৎপরতা থেকে বিরত থাকা।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর