,

24

ফিলিপাইনদের ভয়ংকর খাদ্যাভ্যাস পশুর রক্ত দিয়ে তৈরি খাবার খায় যে জাতি

হাওর বার্তা ডেস্কঃ  কারো কাছে সুস্বাদু, আবার কারো কাছে ঘৃণিত এমন অনেক খঅবারই রয়েছে বিশ্বজুড়ে। একেক দেশের প্রচলিত ও ঐতিহ্যবাহী খাবারের সঙ্গে অন্য দেশেরটা মিলবে না সেটাই স্বাভাবিক! ঠিক তেমনই যেসব খাবার খেয়ে অভ্যস্ত ফিলিপাইনরা সেগুলো আমাদের কাছে নিকৃষ্ট ছাড়া আর কিছুই না। তাদের উদ্ভট সব খাবার দেখলে আপনার বমি হবে বৈ-কি! এ দেশের মানুষদের কাছে উদ্ভট খাবারগুলোর চাহিদাই নাকি সবচেয়ে বেশি। এসব খাবারগুলোকে বলা হয় এক্সোটিক ফুড!

১ . পিনিকপিকান না মানাক     

নাম পড়েই অবাক হচ্ছেন নিশ্চয়ই! খুবই অদ্ভুত নিয়মে এই খাবার তৈরি করা হয়। একটি জীবন্ত মুরগিকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত করার পর বেঁহুশ অবস্থায় আগুনে ছুঁড়ে ফেলা হয়। এতে পশম পুডড়ে যায়। তারপর চামড়া ছিড়ে মুরগির মাংস বের করে মশলা মাখিয়ে সবাই মিলে মজা করে খায় তারা।

২ . দিনুণ্ডয়ান 

পশুর কিডনি, পাকস্থলি, লিভার, চোখ, নাক, কান ও অণ্ডকোষ দিয়ে রান্না করা বিশেষ এক ধরণের খাবার। এরই নাম দিনগুয়ান। এটি গবাদির পশুর রক্ত দিয়ে রান্না করা হয়। এক্ষেত্রে মাংসে মশলা মাখিয়ে গরম রক্তে ডুবিয়ে রান্না করা হয়। পানির বদলে তারা ছাগল, ভেড়া বা শুকরের রক্ত ব্যবহার করে। মাংসের চেয়ে রক্তে সবচেয়ে বেশি পরিমাণ পুষ্টি থাকে। তাই খেতে অত্যন্ত সুস্বাদু ও পুষ্টিকর এ খাবারটি ফিলিপাইনে বহুল ব্যবহৃত।

৩ . কামারো 

সয়া সস, লবণ ও ভিনেগার দিয়ে মচমচে করে ঝিঝিপোকা ভাজা হয়। এই কামারো নামের খাবারটি খেতে খসখসে ও সামান্য মিষ্টি স্বাদের। ফিলিপাইনের পামপাঙ্গাতে প্রতিবছেই এই খাবার খাওয়ার প্রতিযোগিতা আয়োজিত হয়। সবচেয়ে বেশি ঝিঝিপোকা খাওয়া ব্যক্তি বিজয়ী হিসেবে পুরষ্কৃত হন।

৪ . ক্রিসপি পাটা   

শুকরের পায়ের পাতা বা কব্জি দিয়ে এই খাবারটি প্রস্তুত করা হয়। প্রথমে শুকরের পা কেটে পানিতে সিদ্ধ করার পর কড়া করে ভেজে সয়া সস দিয়ে এটি খাওয়া হয়।

৫ . আসোসিনা   

কুকুরের মাংস ও লিভার দিয়ে তৈরি করা হয় খাবারটি। এগুলো কুচি কুচি করে কেটে কিমা বানিয়ে লেবুর রসে ভিজিয়ে রাখা হয়। তারপর টমেটো সস দিয়ে সেটি রান্না করা হয়। আসোসিনা নামের ভয়ংকর এই খাবারটি নিষিদ্ধ হলেও এর বিপুল চাহিদা রয়েছে ফিলিপাইনে।।

৬ . সিসিস 

আস্ত শুকরের মাথা! এরই নাম সিসিস। এই খাবারটি রান্নার জন্য শুকর জবাই করে পুরো মাথাটি আলাদা করে গরম পানিতে সিদ্ধ করা হয়। তারপর আগুনে সেঁকে মাথার লোম পুড়িয়ে পেঁয়াজ ও যাবতীয় মশলা দিয়ে রান্না করে মাথাটি একটি বড় প্লেটে করে পরিবেশন করা হয়।

৭ . পাপাইতান  

ছাগলের পাকস্থলির ভেতর থাকা পিত দিয়ে এই খাবারটি রান্না করা হয়। অবশ্যই এর স্বাদ তেঁতো হবে। এটা ফিলিপাইনের খাবারগুলোর মধ্যে সবচেয়ে জঘণ্য খাবার।

এছাড়াও বালুট, সাপের ডিম, টামিলক, বেজির চামড়াসহ রোস্ট, ভেড়ার চোখ, বানরের মগজ ভুনাসহ আরো নানান অদ্ভুত খাদ্য গ্রহণের অভ্যাস তো তাদের আছেই। সব মিলিয়ে ফিলিপাইন আসলেই বড় অদ্ভূত।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর