,

১১

গোয়াইনঘাটে নৌকা বাইচ

আবহমান বাংলার চিরাচরিত লোক উৎসব নৌকা বাইচে মাতোয়ারা হয়ে ওঠে গোয়াইনঘাটের অজোপাড়াগা। মনের খোরাক মেটাতে আনন্দ উচ্ছ্বাসে মেতে উঠে নদীর পারের মানুষগুলো। শিশু, কিশোর, নারী, আবালবৃদ্ধবনিতার মিলনমেলায় পরিণত হয় গোটা সারী নদের মোহনা। হই হুল্লুড় আর নৌকা বাইচের অংশগ্রহণকারীদের উৎসাহ জোগানোর মধ্য দিয়ে আনন্দ ভাগাভাগি করে হাজারো মানুষজন। এ চিত্রে ছিল গোটা এলাকায় আনন্দঘন পরিবেশ। মাইকে উচ্চ স্বরে গান বাজিয়ে, নেচে গেয়ে মাতোয়ারা ছিল অনুষ্ঠানস্থল। গোয়াইনঘাটের সানকিভাঙ্গায় বিশাল নৌকা বাইচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ৩টায় সানকিভাঙ্গা দক্ষিণপাগা সারী নদীর মোহনায় অনুষ্ঠিত এ নৌকা বাইচে অংশগ্রহণ করে বিভিন্ন স্থান হতে আগত ৬টি নৌকা।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন সিলেট জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি, গোয়াইনঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সামসুল আলম। সমাজসেবী আবদুর রহিম খানের সভাপতিত্বে ও পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন হাজী সোহরাব আলী স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মো. ছরোয়ারদী, পূর্ব জাফলং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক মিনহাজুর রহমান, মোজাম্মেল হোসেন সিদ্দিকী মেনন, ব্যবসায়ী জাকির খান, ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক আফাজ উদ্দিন, জাফলং পিয়াইন বার্তার সম্পাদক ইমরান হোসেন সুমন, ফয়জুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা শাহ্‌জাহান সিরাজ, সুলেমান শিকদার, ইব্রাহীম খান, সুলতান মাহমুদ, আশরাফ খান, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা রিপন আহমদ, রিয়াজুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা আবুল কাশেম, ইউ/পি সদস্য আবুল হাসনাত, আবদুল হান্নান প্রমুখ। নৌকা বাইচটি সাময়িক জটলার কারণে এবং অন্ধকার নেমে আসায় চূড়ান্ত নিষ্পত্তি হয়নি। আয়োজক কমিটি অচিরেই পুনরায় তারিখ নির্ধারণ করে ফাইনালে উত্তীর্ণদের মাঝে পুনরায় প্রতিযোগিতার মাধ্যমে উক্ত নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা সম্পন্ন করবে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর