,

৭

কের কালো দাগ ও চুলের খুশকি নিমিষেই দূর করবে ভাত

উজ্জ্বল ত্বকও ঝলমলে চুলের আকাঙ্খা সব নারীরই। বর্তমানে সবাই খাদ্যতালিকা নিয়ে চিন্তিত। তাই তো ভাত খাওয়া প্রায় ভুলতে বসেছেন স্বাস্থ্যসচেতন তরুণীরা। কিন্তু জানেন কি, ভাত যেমন মোটা করে দিতে পারে তেমনই আবার আপনার ত্বকের সৌন্দর্যও বাড়াতে পারে। নিশ্চয়ই ভাবছেন, এ আবার কীভাবে সম্ভব? তবে জেনে নিন ভাতকে কাজে লাগিয়ে অল্প সময়ে সুন্দর হয়ে ওঠার কার্যকরী টিপস-

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভাতই একমাত্র উপাদান যা রূপের বহু সমস্যার সমাধান করতে পারে। অল্প বয়সে ত্বকের উজ্জ্বলতা কমে যাওয়া থেকে খুশকির সমস্যা সবই ভাত দূর করতে পারে নিমেষে। তাই তো প্রাচীন যুগ থেকে জাপান, চিন এবং কোরিয়া সর্বত্রই ভাতকে রূপচর্চার সামগ্রী হিসাবে ব্যবহার করেন। মাত্র ১০ থেকে ১৫ দিন ভাতের ব্যবহারেই আপনি হয়ে উঠতে পারেন ঝকঝকে ত্বকের অধিকারী। কিন্তু যেভাবে মনে হল সেভাবেই ভাত ব্যবহার করলে তো সুন্দর হওয়া যায় না। তার চেয়ে জেনে নিন ব্যবহারের পদ্ধতি।

১. ভাতের ফ্যান ফেলে দেন? আজ থেকে এই ভুল আর ভুলেও করবেন না। কারণ, আপনার চুলের যত্নের জন্য ফ্যান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। যারা খুশকির সমস্যায় ভুগছেন, তারা প্রতিদিন ভাতের ফ্যান দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। সপ্তাহখানেক এটি ব্যবহার করলে আপনি ওই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে বাধ্য। এছাড়াও ফ্যানের সঙ্গে অ্যাভোকাডো দিয়ে মিশ্রণ তৈরি করতে পারেন। সুন্দর চুল পেতে ওই মিশ্রণ অবশ্যই কাজে লাগান।

২. রোদে পুড়ে আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা কি তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে? এই পরিস্থিতিতে আপনাকে চটজলদি সুন্দর ত্বক দিতে পারে ভাতের ফ্যান। প্রতিদিন ফ্যান ঠান্ডা করে মুখে স্প্রে করুন। তাতেই দেখবেন কালো দাগ পরিষ্কার হয়ে নতুন রূপ পেয়েছে আপনার ত্বক।

৩. সারাদিন বাইরে ঘোরাঘুরির পর বাড়ি ফিরে তুলো ফ্যানে ভিজিয়ে ১০ মিনিট মুখে লাগান। সপ্তাহখানেক পর আয়নার সামনে দাঁড়িয়েই আপনি তফাত বুঝতে পারবেন।

৪. আপনার মুখের বলিরেখা দূর করতে চাইলে চাল অত্যন্ত প্রয়োজন। অল্প পরিমাণ চাল গুঁড়ো করে নিন। এবার তার মধ্যে নারকেল তেল, আমন্ড অয়েল এবং ভিটামিন ই ক্যাপসুল দিন। ওই মিশ্রণ বেশ কিছুক্ষণ মুখে লাগিয়ে রাখুন। তারপর ঠান্ডা পানিতে ধুয়ে নিন। দেখবেন তাতেই মোহময়ী হয়ে উঠেছেন আপনি।

৫. ত্বককে আরও উজ্জ্বল করে তুলতে হলে সেদ্ধ ভাত কাঁচা দুধে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। এবার তাতে মধু এবং বেসন মিশিয়ে গোটা মুখে মাখুন। ঘণ্টাখানেক রেখে তা ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহখানেকের মধ্যে দেখবেন আপনার ত্বক হয়ে উঠেছে অনেক বেশি সুন্দর।

৬. ত্বকের বয়স কমাতে চাইলেও ভাত ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু প্রশ্ন হল কীভাবে তৈরি করবেন এই মিশ্রণ? অ্যালোভেরা, গোলাপ জল, মিল্ক ক্রিম এবং সেদ্ধ ভাত একসঙ্গে ভাল করে মিশিয়ে নিন। এবার তা গালে মাখুন। তাতেই আপনার ত্বক হয়ে উঠেছে এক্কেবারে তন্বীর মতো চকচকে।

৭. আপনার ত্বক কি একটু গরমেই লাল হয়ে যায়? তাহলে ভাতের ফ্যান দিয়ে তৈরি আইস কিউব গালে ঘষুন। সপ্তাহখানেকেই ফল পাবেন, তা হলফ করে বলা যায়।

৮. ত্বকের কালো ছোপ দূর করতে চাইলে স্নানের আগে প্রতিদিন সারা শরীরে ভাতের ফ্যান মাখুন, তাতেই দেখবেন আপনি হয়ে উঠেছেন এক্কেবারে অন্যরকম।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর