,

n2

উখিয়ায় এনজিওদের কৃষি সরঞ্জামকে ‘দেশীয় অস্ত্র’ হিসেবে দেখানো হয়েছে: জাতিসংঘ

হাওর  বার্তা ডেস্কঃ কক্সবাজারের উখিয়ায় একটি এনজিওর গুদামে রাখা কৃষি সরঞ্জামকে ‘দেশীয় অস্ত্র’ হিসেবে দেখানো হয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের অভিবাসন সংস্থা আইওএম।

শুক্রবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জাতিসংঘের অভিবাসন সংস্থা আইওএম এ তথ্য জানায়।

তাদের দাবি, এসব গৃহস্থালী ও কৃষি উপকরণকে ভুলভাবে উপস্থাপন করায় ভুল বোঝাবুঝি তৈরি হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, দুটি স্থানীয় এনজিওকে স্থানীয় প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে কৃষিকাজসহ নানা দৈনন্দিন কাজের জন্য সহায়তার অংশ হিসেবে দিতে কিছু গৃহস্থালি সরঞ্জাম দেয়া হয়েছিল।

আইওএম বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানায়, ‘এসব সরঞ্জাম শুধুমাত্র স্থানীয় জনগোষ্ঠীর জন্য এবং এগুলো কোনোভাবে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য নয়। কিন্তু বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভুলভাবে উপস্থাপিত হওয়ায় এটি নিয়ে প্রশাসন, গণমাধ্যম ও সুশীল সমাজে ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়। ’

‌‌‘প্রকৃতপক্ষে এসব সরঞ্জাম ছিল কৃষিকাজে ব্যবহারের এবং এগুলো শুধুমাত্র স্থানীয় জনগোষ্ঠীকে দেয়ার জন্য স্থানীয় এনজিওটিকে দেয়া হয়েছিল।’

আইওএম আরও জানায়, বিষয়টি উখিয়া উপজেলা ও কক্সবাজার জেলা প্রশাসন খতিয়ে দেখেছে এবং পর্যাপ্ত প্রমাণ পাওয়া সাপেক্ষে জব্দ করা সরঞ্জাম পুনরায় এনজিওটিকে ফেরত দিয়েছে।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার বিকালে উখিয়ার মালভিটা এলাকায় বেসরকারি সংস্থা শেড’র কার্যালয় সংলগ্ন গুদামে অভিযান চালিয়ে আলোচিত ওই সরঞ্জাম জব্দ করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফখরুল ইসলা

দা, ছুরি, করাত এবং প্লায়ার্স মিলিয়ে প্রায় ৫ হাজার সরঞ্জাম ছিল। এগুলো ২০-২৫টি বড় আকারের বস্তায় রাখা ছিল এবং বস্তাগুলোতে আইওএমের লোগো ছিল।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর