,

n14

বিচারকদের চরম অপমান করে পার্থক্যটা কোথায় রাখলেন: শবনম ফারিয়া

রিয়্যালিটি শো-এর বিচারক হয়ে বিব্রতকর পরিস্থিতির সম্মুখীন হন অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া। ক্ষুব্ধ হয়ে নায়িকার মোবাইল নম্বর ফেইসবুকে ছড়িয়ে দিয়েছেন এক মেহেদী নামের এক ব্যক্তি। এই নিয়ে তিনি জিডিও করেছেন।

বিষয়টি নিয়ে ফেইসবুকে দীর্ঘ স্ট্যাটাস দিয়েছে ‘দেবী’র সিনেমার অভিনেত্রী। তিনি লেখেন, “অডিশনে আশা যুবকদের অপমান করার জন্য আপনারা ক্ষুব্ধ। আর সেটা প্রতিবাদ করতে আপনার কী করছেন। আপনারাও বিচারকদের চরম অপমান করে তার প্রতিবাদ করছেন। পার্থক্যটা কোথায় রাখলেন?”

এবার পড়ুন পুরো লেখাটি-

“প্রসঙ্গ মাসুদ রানা:

আমি কয়েকটি পয়েন্টে কথা বলতে চাই। শুরুটা করছি প্রশ্ন দিয়েই।

আমি বিশ্বাস করি আমার ভক্ত ও বন্ধুরা অত্যন্ত বুদ্ধিমান ও বিচক্ষণ। আপনাদের কি মনে হয়, ক্যামেরার সামনে থাকা মানুষগুলোর ব্যক্তিগত অভিমত দেওয়ার জায়গা কি খুব থাকে এসব বিচারকার্যে? কিংবা বিচারকদের ব্যক্তিগত ছবি মাসুদ রানা?

শুরু থেকেই আমরা জেনেছি এটি বিগ বাজেটের একটি চলচ্চিত্র। যার বাজেট নাকি ৮৩ কোটি টাকা! যেখানে দুই কোটিতে আমরা একটি ছবি নির্মাণ করি, সেখানে এর বাজেট ৮৩ কোটি!

এত টাকার লগ্নির কারণ ডিটেইল কাজ করছে তারা। এই যে বিচারকাজ, গ্রুমিং সবই হচ্ছে বিস্তারিত। এখন আপনার কি মনে হয়, যারা ৮৩ কোটি টাকা বিনিয়োগ করছেন, তারা হুট করেই দু’একজনকে ধরে এনে বিচারকের আসনে বসিয়ে দেবেন? নিশ্চয়ই নয়।

অনুষ্ঠানে বিচারকেরা যা-তা করে চলে যাবেন, আর তারা কোটি কোটি টাকা ঢেলে দেবেন? নিশ্চয়ই নয়!

বা এই যে এত টাকার একটি অনুষ্ঠানে এটা কি অনুষ্ঠান প্রযোজক, পরিচালক, কুশলীরা ছাড়া শুধু বিচারকরাই ডিরেকশন দিয়ে, নিজেরা সংলাপ বলে অনুষ্ঠান শেষ করছেন? আপনার কী মনে হয়?

ভেবে দেখুন, অডিশনে আশা যুবকদের অপমান করার জন্য আপনারা ক্ষুব্ধ। আর সেটা প্রতিবাদ করতে আপনার কী করছেন। আপনারাও বিচারকদের চরম অপমান করে তার প্রতিবাদ করছেন। পার্থক্যটা কোথায় রাখলেন?

শুধু বলি গত কয়েক দিন ধরে আমার সঙ্গে যা ঘটেছে তা অবর্ণনীয়! ফেসবুকে হুমকি গালি-গালাজসহ আমার নম্বর ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। একজন মেয়ের জন্য এর ফল কতটা ভয়ংকর তা নিশ্চয়ই আপনার উপলব্ধি করতে পারবেন!

ব্যক্তিগত আক্রমণ যদি অন্য কেউ করে, সেটাও কি আমার দায়ভার?

এখন আমার বিচার বিশ্লেষণের পুরোটা দেখতে পারেন। আমার প্রশ্নগুলো দেখতে পারেন। মাসুদ রানা কেমন, সেই লুকের কথা উপন্যাসে আছে। লম্বা, গড়ন, লুক-সবই উল্লেখ করা। সুতরাং অনুষ্ঠানের পরিচালকরা যে যে ক্রাইটেরিয়ায় কথা বলতে বলেছেন আমি সেগুলো নিয়ে কথা বলেছি। অভিনয় জানে কিনা কিংবা পূর্ব অভিজ্ঞতার কথা জানতে চেয়েছি, আমি মাসুদ রানার বৈশিষ্ট্য নিয়ে কথা বলেছি। আমি কাউকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করিনি।

অন্যরা কীভাবে ভাবেন, জানি না। কিন্তু আমার সামনে যে ছেলেটি অডিশন দিতে এসেছে, তাকে আমি অসম্মান করিনি। প্রথমত ধরেই নিয়েছি, যেহেতু তার স্বপ্ন অভিনয়, সেহেতু সে আমার সে আমার ভবিষ্যৎ কলিগ কিংবা দর্শক বা ভক্তও হতে পারে (আবার নাও হতে পারে) বা আমাকে চেনেন।

যদি কেউ তাদের মধ্যে আমার ভক্তও হয়ে থাকেন, আমি চাইনি অভিনয় জগতের মানুষ হিসেবে আমার প্রতি তার ক্ষোভ জন্মাক, বা অশ্রদ্ধা জন্মাক।

বিষয়টি আমি এভাবে ভাবি, যারা আমার সামনে এসেছেন, তাদের ভালোবাসার জন্যই আমি হয়তো অভিনেত্রী হয়ে বিচারকের আসনে বসতে পেরেছি।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর