,

n7

ছাত্রলীগ কমিটির দাবিতে গুরুদয়াল সরকারি কলেজে বিক্ষোভ মিছিল

কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি পদপ্রার্থী সাইদুর রহমান সজলের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, গুরুদয়াল সরাকারি কলেজ ঐতিহ্যবাহী একটি কলেজ। এই কলেজে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ এর বর্তমান মহামান্য রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদসহ অসংখ্য নেতাকর্মী এ কলেজে অধ্যয়ন করেছেন। রাজনৈতিক ইতিহাসে গুরুদয়াল সরকারি কলেজ অন্যতম। এই কলেজটিতেই বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কমিটি নেই দীর্ঘ এক যুগেরও বেশি সময় যা সত্যিই হতাশাজনক। ছাত্রলীগের কমিটি না থাকায় কলেজে বিএনপি, জামায়াতসহ বিভিন্ন নিষিদ্ধ সংগঠন তাদের কার্যক্রম চালানোর চেষ্টা করছে। দীর্ঘদিন কমিটি না থাকায় ছাত্রলীগের মাঝে স্থবিরতা দেখা দিয়েছে। কিশোরগঞ্জ জেলা শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি শফিকুল গণি ঢালী লিমন ও সাধারণ সম্পাদক আশরাফ আলী দীর্ঘ ৫ বছর ধরে জেলা ছাত্রলীগের দায়িত্বে আছেন। কিন্তু কলেজ কমিটি নিয়ে তাদের উদাসীনতা নেতাকর্মীদের মাঝে হতাশার সৃষ্টি করেছে।

এ সময় গুরুদয়াল সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের একাধিক কর্মী অভিযোগ করেন, কলেজ শাখা ছাত্রলীগ নিয়ে বর্তমান জেলার ছাত্রলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নিরব ভূমিকা পালন করছেন। এতে করে আমাদের ছাত্র রাজনীতিতে বিরুপ প্রভাব ফেলছে। আমরা দ্রুত কলেজ ছাত্রলীগ কমিটি চাই। কমিটির দাবিতে আমাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

গুরুদয়াল কলেজ ছাত্রলীগ কমিটি বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি শফিকুল গণি ঢালী লিমনের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এক যুগ ধরে কমিটি নেই কথাটি পুরোপুরি সত্য নয়। মোঃ মাহফুজুর রহমান আহ্বায়ক ও আমাকে যুগ্ন আহ্বায়ক করে একটি আহ্বায়ক কমিটি এখনো বিদ্যমান আছে যা বিলুপ্ত হয়নি। তবে আমরা অচিরেই কলেজ শাখা পূর্ণাঙ্গ কমিটি করবো।

জেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক আশরাফ আলী মুঠোফোনে জানান, দীর্ঘ একযুগ ধরে কমিটি নেই কথাটার সাথে আমি একমত নই। তবে দীর্ঘদিন যাবত কলেজ কমিটি নেই। আমরা কিছুদিন হলো দায়িত্ব জেলা ছাত্রলীগের দায়িত্ব নিয়েছি। ইতিমধ্যে অনেক উপজেলা, ইউনিয়ন ও কলেজ কমিটি দিয়েছি। গুরুদয়াল সরকারি কলেজ কমিটিও খুব শীঘ্রই দিয়ে দিতে পারবো বলে আপনাদের আশ্বস্থ করতে পারি।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর